আম্পায়ারের ভূমিকাতে নাসির

তার দুষ্টুমি ভরা কর্মকাণ্ডের ঘটনা নতুন নয়। অনুশীলন, ড্রেসিংরুম ঘুরে সংবাদ সম্মেলন হয়ে ম্যাচের সময় পর্যন্ত দেখা মেলে নাসিরের দুষ্টুমিভরা হরেক কাণ্ডের। বুধবার দেখা মিলল আরেকটি।

মুশফিক রিভিউ নিলে টিভি আম্পায়ারের বার্তা শুনে অনফিল্ড আম্পায়ার যখন আউট ঘোষণা করতে গেলেন, দেখা গেল পাশে দাঁড়িয়ে নাসিরও আঙুল তুলে বসে আছেন।

কামিন্স মিরপুর টেস্টে যথেষ্ট ভুগিয়েছেন। ছোট কিন্তু কার্যকরী দুটি ইনিংস খেলেছেন। চট্টগ্রামে অস্ট্রেলিয়ার ছুঁড়তে যাওয়া লিডটা যখন বাড়ছে, ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারতেন এই পেসারও। তা হতে দেননি মেহেদী হাসান মিরাজ।

ইনিংসের ১০৯তম ওভারের শেষ বল। অফস্টাম্পের অনেক বাইরে পিচ করা মিরাজের বল ব্যাট শ্যাডো না করেই প্যাড দিয়ে ঠেকাতে যান প্যাট কামিন্স। টাইগার ফিল্ডারদের সমস্বরে আবেদন। আম্পায়ার নাইজেল লং সাড়া দিলেন না। খুব দরকারী সময়ে উইকেট পাওয়ার একটা রাস্তা যাওবা তৈরি হল, আম্পায়ার আবার অনড়!

কিন্তু উইকেটের পেছনে দাঁড়ানো মুশফিকের বুঝতে বাকি থাকল না বলটা স্টাম্পে লাগার মত। রিভিউ নিতেও তাই দেরি করলেন না। তৃতীয় আম্পায়ার আলিম দারের সাড়াও মিলল কিছু পর। তার সঙ্গে কথা বলে নাইজেল লং যখন আঙুল তুলতে গেলেন, পাশে দাঁড়িয়ে আম্পায়ারের ভূমিকাতে নাসিরও। দুষ্টুমির ছলে লংয়ের মত করেই আঙুল তুলে জানান দিলেন, অজিদের লেজটা মুড়িয়ে দেয়া কতটা জরুরী জয়ের নেশায় থাকা বাংলাদেশের জন্য।

Facebook Comments