এতিমদের সঙ্গে নায়ক বাপ্পীর ইফতার

হার্ট অব বাপ্পী চৌধুরী গ্রুপের আয়োজনে গতকাল শনিবার ঢাকার মগবাজারে একটি এতিমখানায় ইফতার করেন নায়ক বাপ্পী চৌধুরী। দেশের বিভিন্ন শহরের বেশ কয়েকজন ভক্ত মিলে তিন বছর ধরে ‘হার্ট অব বাপ্পী চৌধুরী গ্রুপ’ পরিচালনা করছেন। এরই মধ্যে সাড়ে তিন লাখ ফ্যান আছে এই গ্রুপে। বিভিন্ন সামাজিক কাজে অংশ নেয় এই ফ্যান গ্রুপটি। তারই অংশ হিসেবে গতকাল এই ইফতারের আয়োজন করা হয়।

চট্টগ্রাম থেকে আসা বাপ্পীভক্ত মিজান বলেন, ‘আমরা এই গ্রুপ থেকে মানুষের উপকার করার চেষ্টা করে থাকি। এই রোজায় অনেক জায়গাতেই আমরা ইফতার করেছি। বাপ্পী ভাইয়ের সঙ্গে একদিন ইফতার করতে চেয়েছিলাম, তখনই আমরা সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিই যে আমরা সেদিন এতিমদেরও নিয়ে ইফতারটি করতে চাই।’

নায়ক বাপ্পী বলেন, ‘যাঁরা এই আয়োজন করেছেন, তাঁরা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এখানে এসেছেন। তাঁরা আমাকে ভালোবাসেন, দেশের চলচ্চিত্রকে ভালোবাসেন। বিভিন্ন ধরনের সামাজিক কাজে অংশ নেয় এই গ্রুপটি।’

কীভাবে এই গ্রুপ তৈরি হলো—জানতে চাইলে ফেনী থেকে আসা মোহাম্মদ হুমায়ুন বলেন, “বাপ্পী ভাইকে আমাদের ভালো লাগে ২০১২ সাল থেকে, যখন উনার প্রথম ছবি ‘ভালোবাসার রং’ ছবিটি মুক্তি পায়। তখনই আমরা এই ফ্যান ক্লাবটি করি। সারা দেশের বিভিন্ন শহর থেকে আমাদের সঙ্গে ছেলেমেয়েরা এক হতে থাকে। অনেক চেষ্টার পর ২০১৪ সালে বাপ্পী ভাইয়ের সঙ্গে দেখা করা সুযোগ পাই। উনার কাছে জানতে চাই আমরা কী করব। তখন উনি বলেন, প্রতিদিন একটা করে ভালো কাজ করেন, না পারলে সপ্তাহে একটি ভালো কাজ, না পারলে অন্তত মাসে অবশ্যই একটি ভালো কাজ করতে হবে।’

‘তার পর থেকেই আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। শীতে শীতবস্ত্র, বন্যায় ত্রাণ, অসহায় শিশুদের পড়াশোনাসহ যখন যেভাবে সম্ভব, আমরা কাজ করছি। ফেনীতে আমাদের একটি স্কুল আছে পথশিশুদের জন্য। বাপ্পী ভাইয়ের নামেই এসব চলে। আমরা সারা দেশেই এমন আরো কিছু কাজ করতে চাই,’ জানাচ্ছিলেন ফ্যানক্লাবের সদস্য হুমায়ুন।

Facebook Comments
,