কাবুলে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৩১

কাবুলের পশ্চিমাংশের দাশত-ই বার্চি এলাকায় ওই কেন্দ্রের বাইরে ভোটাররা যখন পরিচয়পত্রের জন্য অপেক্ষা করছিলেন, তখনই ওই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

কয়েক সপ্তাহ তুলনামূলক শান্ত থাকার পর কাবুলে এ হামলায় আরও ৫৪ জন আহত হয়েছেন। জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করেছে।

কাবুলের ওই এলাকায় সংখ্যালঘু শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের বসবাস। এর আগেও আইএস বেশ কয়েকবার এই এলাকায় প্রাণঘাতী বোমা হামলা চালিয়েছিল।

আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাজিব দানেশ জানান, ওই ভোটার নিবন্ধন কেন্দ্রে পরিচয়পত্র  বিতরণের সময় হেঁটে আসা এক ব্যক্তি তার সঙ্গে থাকা বোমায় বিস্ফোরণ ঘটায়।

বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলের আশপাশে রাখা গাড়ি ধ্বংস হয় এবং বিভিন্ন বাড়ির জানালা ভেঙে পড়ে।

বশির আহমদ নামে একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ঘটনাস্থলে শিশুদের নিয়ে নারীরাও এসেছিলেন পরিচয়পত্র সংগ্রহ করতে।

আগামী অক্টোবরে আফগানিস্তানের পার্লামেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা। তার প্রস্তুতিতে পুরো আফগানিস্তানজুড়ে ভোটার রেজিস্ট্রেশন সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। এর মধ্যেও যে হামলা হতে পারে, সেই শঙ্কা আগে থেকেই করেছিলেন অনেকে।

Facebook Comments