গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশির লাশ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ

পশ্চিমবঙ্গের বাংলাদেশ সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশি সোহেল ও হারুনের লাশ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ।

বুধবার রাতে বিজিবি-বিএসএফ’র দ্বিপাক্ষিক পতাকা বৈঠকের পর বিএসএফ লাশ দুটি বিজিবি’র কাছে হস্তান্তর করে।

নিহত সোহেল রানা খোসালপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে ও হারুন অর রশিদ শ্যামকুড় গ্রামের কাউসার আলীর ছেলে।

৫৮ বিজিবি’র পরিচালক লে. কর্নেল জিল্লুর রহমান জানান, বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশি কিশোর সোহেল ও হারুন নিহত হওয়ার ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে একটি পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের পরও লাশ দুটি ফেরত দেয়নি তারা। বুধবার রাতে দ্বিতীয় দফায় আরও একটি পতাকা বৈঠকের পর বিএসএফ লাশ দুটি ফেরত দেয়। এর আগে নিহত দুইজনের মৃতদেহ কৃষ্ণপুর হাসপাতাল মর্গে ছিল বলে বিজিবি জানায়।

পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে বিজিবি’র যশোর সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মাসুদ আহমেদ ও ভারতের পক্ষে বিএসএফ’র নবম ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক আর এফ মিন্স নেতৃত্ব দেন।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার দুপুরে মহেশপুরের খোসালপুর সীমান্তের কাছে ভারতের কুমারী ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে সোহেল ও হারুন ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

 

Facebook Comments