পিৎজা শপে ওয়েটার ‘নারী রোবট’!

পিৎজা শপে গিয়ে খাবারের অর্ডার দিয়েছেন। অপেক্ষা করার পর ওয়েটার এলো। একটু ভালোভাবে তাকাতেই ভড়কে গেলেন। যা আশা করছিলেন, তা হয়নি। যাকে দেখছেন, তিনি কোনো মানুষ নয়, রূপসী নারীরূপী রোবট। ভাবছেন, কোনো কল্পকাহিনী কিংবা নাটক, সিনেমার দৃশ্য। মোটেও তা নয়। বাস্তবেই এমন দৃশ্য দেখতে পাবেন।

বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের (এপি) এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তানের মুলতানের একটি পিৎজা শপে নারীরূপী একটি রোবটকে ওয়েটার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। আর এতে বাজিমাত করেছেন শপের মালিক। রোবটটিকে নিয়োগ দেওয়ার পর  থেকে পিৎজার বিক্রি তরতর করে বাড়ছে।

২৫ কেজি ওজনের এই রোবটটির নকশা করেন পিৎজা শপের মালিক আজিজের ছেলে প্রকৌশলী ওসামা জাফরি। তিনি এপিকে বলেন, রোবটটি পিৎজা শপে আসা লোকজনকে স্বাগত জানাতে এবং টেবিলে  খাবার পরিবেশন করতে পারে।

জাফরি বলেন, রোবটটিকে হাল্কা গড়নের এক নারীর অবয়ব দেওয়া হয়েছে। লম্বা জামা পরানোর পাশাপাশি এর গলায় ওড়না প্যাঁচিয়ে দেওয়া হয়েছে, যাতে পোশাক দেখে কারো অনুভূতিতে কোনো আঘাত না লাগে।

‘পিৎজা ডটকম’ নামের শপের মালিকের ছেলে  জাফরি আরো বলেন, ফেব্রুয়ারিতে রোবটটিকে শপে আনার পর থেকে বিক্রি দ্বিগুণ হয়েছে।

জাফরির বাবা আজিজ বলেন, তাঁর কাছে আরো তিনটি রোবট আছে। তিনি পিৎজা শপের আরেকটি নতুন শাখা খোলার চিন্তা করছেন তিনি।

‘আমি রোবট ব্যবহার করেছি পিৎজা বিক্রির জন্য। কিন্তু রেস্তোরাঁর মালিকরা এখন আমার কাছ থেকে রোবট কিনতে চাচ্ছেন’, বলেন আজিজ।

Facebook Comments