ভ্যাজানাইনাল ড্রাইনেসের সমস্যা সম্পর্কে কিছু কথা

ভ্যাজাইনার টিস্যু ভালোভাবে (lubricant) পিচ্ছিল ও স্বাস্থ্যকর না থাকলে ভ্যাজানাইনাল ড্রাইনেসের সমস্যা হতে পারে।

ভ্যাজাইনায় ব্যথা, ইচিং অথবা জ্বালাপোড়া, সেক্সুয়াল ইন্টারকোর্সের সময় ব্যথা হওয়া, ইন্টারকোর্সের সময় হালকা রক্তপাত, হালকা স্রাব ইত্যাদি ভ্যাজাইনাল ড্রাইনেসের লক্ষণ।

ভ্যাজাইনাল ড্রাইনেস সমস্যার সমাধানে কিছু উপায়ের কথা জানিয়েছে ইউএস নিউজ। তবে বেশি সমস্যা হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

১. পানি পান করুন

প্রতিদিন অন্তত ছয় থেকে আট গ্লাস পানি পান করুন। এতে টিস্যু আর্দ্র থাকবে। ভ্যাজাইনাল ড্রাইনেস কমতে সাহায্য হবে।

২. লুব্রিকেন্ট (পিচ্ছিল পদার্থ)

লুব্রিকেন্ট (পিচ্ছিল পদার্থ) ব্যবহার করে এ সমস্যা থেকে অনেক সময় সমাধান পাওয়া যায়। বিভিন্ন ওষুধের দোকানে লুব্রিকেন্ট জাতীয় পদার্থ পাওয়া যায়। তবে এ জাতীয় ওষুধ বা পদার্থ ব্যবহারের আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৩. পারসোনাল হাইজিন স্প্রে

পারসোনাল হাইজিন স্প্রের রাসায়নিক পদার্থ ভ্যাজাইনাতে ইরিটেশন তৈরি করতে পারে। এতে ভ্যাজাইনাল ড্রাইনেসের সমস্যা হয়। তাই এ ধরনের স্প্রে ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

৪. স্বাস্থ্যকর চর্বি খান

স্বাস্থ্যকর চর্বি শরীরের জন্য জরুরি। ভ্যাজাইনাল ড্রাইনেস প্রতিরোধে খাদ্যতালিকায় স্বাস্থ্যকর চর্বি রাখুন। যেমন : ফ্ল্যাক্সিড, সয়া ইত্যাদি।

Facebook Comments