মেসির বিশ্বকাপে আসায় নেইমারের উচ্ছ্বাস

বহু ঘটনার জন্ম দিয়ে বার্সেলোনা ছেড়েছেন। সাবেক ক্লাবের সঙ্গে সম্পর্কটা এখনও আদায়-কাঁচকলা। তবে একজনের সঙ্গে বন্ধুত্বটা অটুটই আছে নেইমারের। তিনি লিওনেল মেসি।

দুজনে এখন থাকেন হাজার হাজার মাইল দূরে। কিন্তু বন্ধুত্বের গভীরতাটা বোঝা গেল ঠিকই। সেটি নেইমারের অভিব্যক্তিতে। বন্ধু মেসিকে বিশ্বকাপে দেখতে পাবেন বলে যে দারুণ খুশি ব্রাজিলিয়ান ওয়ান্ডারবয়। মেসির কীর্তিতে নেইমারের মত খুশি তার বউও।

রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট বিশ্বের প্রথম দল হিসেবে নিশ্চিত করেছে নেইমারের ব্রাজিল। তখন অনেক যদি-কিন্তুর হিসেব ফেরে আটকে ছিল মেসির আর্জেন্টিনা। শেষ পর্যন্ত সব আশঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে সরাসরি বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে আর্জেন্টিনাও। ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেছেন এমএল টেন।

মেসির দিনে ম্যাচ ছিল নেইমারেরও। সেই ম্যাচে চিলিকে ৩-০তে হারিয়েছে ব্রাজিল। ম্যাচ শেষে পিএসজি তারকা কথা বলেছেন মেসিকে নিয়েও, ‘এমন একটা গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতায় বন্ধুকে দেখতে পেয়ে আমি খুশি। চিলি দলেও আমার বন্ধুরা আছেন। কিন্তু সব কিছুর উপর আমরা মানুষ। প্রতিটি ম্যাচই জয়ের জন্য খেলতে হয়।’

বার্সায় চার মৌসুম একসঙ্গে খেলেছেন নেইমার-মেসি। এরপর ট্রান্সফার ফি’র রেকর্ড গড়ে ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে পিএসজিতে যোগ দেন নেইমার।

ইকুয়েডর ম্যাচের পর মেসিকে স্পেশাল ম্যাসেজ পাঠিয়েছেন তার স্ত্রী আন্তনেল্লা রোকুজ্জো। ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘গর্বিত, এই নিয়ে কখনোই দ্বিধা ছিল না!! আমার ভালবাসা শুধু তোমার জন্য। এখন বাড়ি ফিরে এসো, আমরা তোমাকে অনেক মিস করছি।

Facebook Comments